সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন

ফেনসিডিল বোতলের স্তূপ মান্দা থানা গ্যারেজে!

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৪ জুন, ২০২১
  • ৩০ দেখা হয়েছে

বাংলা হেডলাইনস নওগাঁ প্রতিনিধি: থানা মানেই নিরাপত্তা বেষ্টনির মধ্যে আবদ্ধ। যেখানে কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটার সম্ভবনা একে বারেই নেই বললেই চলে।

প্রতিটি থানার নিরাপত্তা জোরদার করতে বর্তমানে সিসি ক্যামেরায় আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। এতো নিরাপত্তার মধ্যেও নওগাঁর মান্দা থানা চত্বরে ফেন্সিডিল বোতলের স্তূপ পড়ে রয়েছে। সেখানে ফেন্সিডিলের বোতল পড়ে থাকায় জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, থানা চত্বরে ভেতরে পশ্চিম পাশে ওসির বাসভবন। আর বাসভবনের গা ঘেঁষে পূর্ব পার্শ্বে মোটরসাইকেল গ্যারেজের কোনায় ভারতীয় নিষিদ্ধ ফেন্সিডিলের খোলা বোতলের স্তুপ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

কে বা কাহারা থানা চত্বরের ভিতরে এই ফেন্সিডিল সেবন করে এগুলো স্তপ করেছে। সিসি নিয়ন্ত্রিত থানার ভিতরে কিভাবে এই ফেন্সিডিল বোতলগুলো জমে আছে তা নিয়ে থানায় সেবা নিতে আসা সচেতন মহলে প্রশ্ন উঠেছে?

আসলে এগুলো কারা সেবন করে, কোথায় থেকে আসে? পুলিশ মাদক সেবীদের ধরে জেল হাজতে প্রেরণ করেন অথচ সেই থানা চত্বরের ভিতরে অসংখ্য পরিত্যক্ত ফেন্সিডিলের বোতল স্তূপ হয়ে পড়ে আছে।

তবে গ্যারেজে কোন সিসি ক্যামেরা না থাকায় নিরাপত্তা মনে করে নিয়মিত সেখানে ফেন্সিডিল সেবন করা হয়ে থাকতে পারে। যদি থানা চত্বরে এমন হয় তাহলে বাহিরের পরিবেশ কেমন হবে এমন প্রশ্ন সচেতনদের? 

সচেতন মহল বলছে- কোন ভাবেই এসকল অভিযোগের দায় এড়াতে পারেন না ওসি। যেখানে সরকার মাদকের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে।

এছাড়াও নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপারের পক্ষ থেকে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা কথা শুনেছি। সেখানে থানার ভেতরে ফেন্সিডিলের বোতলগুলো স্তূপ হয়ে পড়ে থাকতে পারে।

নওগাঁ মাদক নির্মুল কমিটির সভাপতি হাফিজুর রহমান বলেন, আমরা মাদক নির্মুল নিয়ে আন্দোলন করে আসছি। সামাজিক আন্দোলন করি সমাজকে মাদকমুক্ত রাখার জন্য। শুধু থানা চত্বরই না সব জায়গা মাদক মুক্ত রাখতে হবে। 

মাদকমুক্ত জেলা হিসেবে আমরা দেখতে চাই। সেই লক্ষে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। অনেক প্রচার-প্রচারণাও করেছি। এতে অনেক কাজ হয়েছে। সম্পূর্ণ সফল হয়নি। সবাই আন্তরিকভাবে এগিয়ে না আস পর্যন্ত এটা সফল হবে না।

এ বিষয়ে জানতে মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমানের মোবাইল ফোনে কল করা হলে তিনি ‘বিষয়টি দেখছি’ বলে রেখে দেন।

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (মান্দা সার্কেল) মতিয়ার রহমান বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। দেখতে হবে।

ফেসবুকের মাধ্যমে আমাদের মতামত জানাতে পারেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

এই বিভাগের আরো সংবাদ
Banglaheadlines.com is one of the leading Bangla news portals, Get the latest news, breaking news, daily news, online news in Bangladesh & worldwide.
Designed & Developed By Banglaheadlines.com