শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১২ অপরাহ্ন
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার:
সিরাজগঞ্জে সুবিধাভোগীর টাকা আত্মসাতের দায়ে গ্রাম পুলিশ চাকরিচ্যুত বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার দুই নারী যাত্রী নিহত আজ করোনায় ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বরিশাল ও রাজশাহী বিভাগে মৃত্যু নেই কুড়িগ্রামে স্কুল খোলার ৫ দিনেও ক্লাস শুরু না হওয়ায় বিপাকে ২৮৫ শিক্ষার্থী মান্দায় দিনব্যাপী প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত বাঘাইছড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে একজন নিহত আজ করোনা সংক্রমণ কয়েক মাসে সর্বনিম্ন।। সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগে মৃত্যু নেই কৃতি ছাত্রী নৈঋতা হালদারকে সম্মাননা সাংগঠনিক কর্মকান্ড গতিশীল করতে রাঙ্গামাটিতে যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত গাজীপুরে বজ্রপাত প্রতিরোধী তালবীজ বপন

কুড়িগ্রামে সরকারি বিধি নিষেধ অমান্য করে ঈদ আনন্দ উৎযাপন

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৫ জুলাই, ২০২১
  • ৪৪ দেখা হয়েছে

বাংলা হেডলাইনস কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে দ্বিতীয় দফা ২৩ জুলাই শুক্রবার থেকে দেশব্যাপী কঠোর লকডাউন চলমান রয়েছে।

প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে সরকারের বিধি নিষেধ তোয়াক্কা না করেই স্থানীয় ঈদ আনন্দ উৎসবে পুরস্কার বিতরণ খোদ ইউপি চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা থানার কেদার ইউনিয়নের গোলের হাট সরদারটারী গ্রামে ঈদ আনন্দ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকাল তিনটা থেকে সন্ধা পর্যন্ত ভূরুঙ্গামারী-মাদারগঞ্জ সড়কের পাশে বাড়ির উঠানে এই আনন্দ মেলার আয়োজন করে স্থানীয়রা।

এই আনন্দ আয়োজন দেখতে আশে পাশের কয়েকটি গ্রামের শত শত নারী-পুরুষ, শিশু-কিশোরসহ পথচারীদের ভিড় জমে যায়। জনসমাগমে গাদাগাদি করে দর্শকদের এসব আয়োজন উপভোগ করতে দেখা যায়। ছিল না কোন স্বাস্থ্যবিধি মানার প্রবণতা।

আয়োজনে রশি টানা, যুবকদের টায়ার টানা, চোখ বেধে হাড়ি ভাঙ্গাসহ গ্রামীণ বেশ কয়েক প্রকার খেলা অনুষ্ঠিত হয়। বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলা এই খেলা শেষে ঘটা করে ইউপি চেয়ারম্যান জয়ীদের পুরুস্কার প্রদান করেন।

আয়োজকদের একজন এনামূল হক বলেন এই সময়ে এরকম আয়োজন করাটা ভুল হয়েছে। তবে আমি আয়োজনে ছিলাম না। গ্রামের উঠতি বয়সি কিছু যুবক এটা করেছে। পরে আমি এই আয়োজন দ্রুত শেষ করতে বলি।

কেদার ইউপি চেয়ারম্যান মাহাবুবুর রহমান বলেন আয়োজনটির বিষয়ে আগে থেকে জানতাম না এবং আমি অতিথিও ছিলাম না। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে খেলাধুলা সহ সব আয়োজন বন্ধ করে দেই।

কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহাবুব আলম বলেন ঈদ আনন্দ উৎসব সম্পর্কে কেউ আমাকে অবগত করেনি। বিষয়টি সম্পর্কে জানলে ব্যবস্থা গ্রহণ করতাম।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর আহমেদ মাছুম বলেন এ সম্পর্কে জানা ছিলো না। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে। কর্তৃপক্ষক যে সিদ্ধান্ত দিবেন সেটা বাস্তবায়ন করা হবে।

ফেসবুকের মাধ্যমে আমাদের মতামত জানাতে পারেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

এই বিভাগের আরো সংবাদ
Banglaheadlines.com is one of the leading Bangla news portals, Get the latest news, breaking news, daily news, online news in Bangladesh & worldwide.
Designed & Developed By Banglaheadlines.com