রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৭:০৬ পূর্বাহ্ন
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার:
রাজনৈতিকভাবে সরকারকে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়ে মৌলবাদকে উস্কে দেয়: তথ্যমন্ত্রী মানিকগঞ্জ পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেলেন রমজান আলী নওগাঁয় সপ্তদশ মানবাধিকার নাট্য উৎসব অনুষ্ঠিত রবিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেল সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী সম্মাননা প্রদানের মাধ্যমে শেষ হলো কবি সম্মেলন করোনায় আজ মৃতের সংখ্যা বেশি ৩৬ জন ।। ঢাকা বিভাগেই ৩০ জন বগুড়া বার সমিতির নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী প্যানেলের জয় বগুড়ায় দুই দিনব্যাপী কবি সম্মেলন ও বইমেলার উদ্বোধন রাঙ্গামাটি রাজবন বিহারে কঠিন চীবর দানোৎসব উদযাপিত মৃত দেখিয়ে ভোটার তালিকা থেকে কাউন্সিলর প্রার্থীর নাম কর্তন

৯ম শ্রেণীর ছাত্রীকে বিয়ে করলেন ৪৫ বছর বয়সী ইউপি চেয়ারম্যান !

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২ নভেম্বর, ২০২০
  • ৩৫ দেখা হয়েছে

বাংলা হেডলাইনস  কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি : নবম শ্রেণী পড়ুয়া এক ছাত্রীকে বাল্য বিয়ে করে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছেন ৪৫ বছর বয়সী এক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান।

৩য় বারের মত বিয়ের পিঁড়িতে বসায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন তিনি।

ঘটনাটি জেলার উলিপুর উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই ইউনিয়নের দোলন গ্রামের প্রতিবন্ধি বাচ্চু মিয়ার ৯ম শ্রেণি পড়ুয়া বকসীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী বন্নি আক্তারের উপর নজর পড়ে বুড়াবুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকারের।

এরপর ওই ছাত্রীকে নানাভাবে ফুসলিয়ে তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন এবং হতদরিদ্র মেয়েটির পরিবারটিকে আর্থিক সহায়তার প্রলোভন দেখাতে থাকেন। এক পর্যায়ে গত রবিবার রাতে মেয়েটির পরিবারের লোকজন চেয়ারম্যানের সাথে তার বিয়ে দেন।

ব্যক্তিগত জীবনে ইউপি চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকারের এক স্ত্রী ও কলেজ পড়ুয়া এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

তবে এর আগেও তিনি আরো একটি বিয়ে করলেও সেটি বেশিদিন টিকেনি। চেয়ারম্যানের ৩য় বিয়ের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ছড়িয়ে পড়ায় এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় বইছে।

এদিকে, একজন নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান প্রকাশ্যে বাল্যবিয়ে করলেও প্রশাসন কোন আইনগত ব্যবস্থা না নেয়ায় জনমনে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

বকসীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মেহেরুজ্জামান বলেন, ওই ছাত্রী আমার স্কুলের মানবিক বিভাগের ৯ম শ্রেণিতে লেখাপড়া করছে।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকারের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা আশরাফুল আলম রাসেল বলেন, যেহেতু বাল্য বিবাহ হয়ে গেছে, সেখানে মোবাইলকোট করার সুযোগ নেই। তবে এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ফেসবুকের মাধ্যমে আমাদের মতামত জানাতে পারেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

এই বিভাগের আরো সংবাদ
Banglaheadlines.com is one of the leading Bangla news portals, Get the latest news, breaking news, daily news, online news in Bangladesh & worldwide.
Designed & Developed By Banglaheadlines.com